১ লাখ টাকায় ব্যবসা – যে 6 টি ব্যবসা করলে বেশী লাভবান হবেন

১ লাখ টাকায় ব্যবসা

১ লাখ টাকায় ব্যবসা – আপনি কি ১ লাখ টাকায় ব্যাবসা করতে চান? কিন্তু কিভাবে ব্যাবসা শুরু করবেন তার কোনো আইডিয়া পাচ্ছেন না। সঠিক গাইড লাইন না থাকার কারণে ব্যবসা করতে সাহস পাচ্ছেন না। তাহলে এই আর্টিকেলটি শুধু আপনার জন্য। এই আর্টিকেলটি ধৈর্য সহকারে শেষ পর্যন্ত পড়ুন, আপনি ১ লাখ টাকায় ব্যবসা সম্পর্কে ভালো আইডিয়া ও গাইডলাইন দুটোই পেয়ে যাবেন। আমরা প্রথমে ব্যবসা সম্পর্কে একটু আলোচনা করে নিই

বর্তমানে প্রায় সবাই ছোটখাটো একটা ব্যবসা শুরু করতে চায়, কিন্তু অনেকই ভাবে যে ব্যবসা করতে প্রচুর টাকা লাগে। তাই মাথায় প্রথমেই টাকার বিষয়টা ঘুরপাক খায়, যার কারণে ব্যবসা করতে অনেকেই সাহস পায় না। আপনি চাইলে মাত্র ১ লাখ টাকায় ব্যবসা করে লাভবান হতে পারবেন।  আজকে আমি ১ লাখ টাকায় লাভজনক ব্যাবসার সাথে আপনাদের পরিচয় করিয়ে দেবো।

১ লাখ টাকায় ব্যবসা

১ লাখ টাকায় ব্যবসা – আপনি ১ লাখ টাকার মধ্যে অনেক ধরনের ব্যবসা করতে পারবেন। কিন্তু কোন ব্যবসা আপনার জন্য সুবিধাজনক হবে সেটা আপনার বুঝতে হবে। আমি এখন ৬ টি ব্যাবসা নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করবো। আজকাল বাংলাদেশে বেকারত্বের সংখ্যা বেড়েই যাচ্ছে। অনেকেই পড়াশোনায় ভালো করার পরেও চাকরি খুজে পাচ্ছে না। তাই সবাই নেট দুনিয়ায় ইউটিউবে গুগলে সার্চ করেন কিভাবে অল্প টাকায় বিজনেস করা যায়।

আজকে আমরা কথা বলবো ১ লাখ টাকায় ব্যবসা সেরা ৬ টি ব্যবসা নিয়ে। . ক্যাটারিং সার্ভিস / ব্যবসা। .চা সিঙাড়ার দোকান।  .ফলের জুসের দোকান। . ফাস্ট ফুডের দোকান। .ইলেকট্রনিক পন্য সার্ভিসিং। হাঁস-মুরগী পালন। 

আপনি অল্প টাকা ইনভেস্ট করে এই ব্যবসা গুলো করে লাভবান হতে পারবেন। আপনি কিভাবে এই ব্যবসা গুলো শুরু করবেন, সে সম্পর্কে নিচে গুছিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে।

১- ক্যাটারিং সার্ভিস / ব্যবসা

আপনার ইনভেস্ট যদি ১ লাখ টাকায় ব্যবসা হয় তাহলে ক্যাটারিং ব্যবসা সবচেয়ে লাভজনক ব্যবসা। আপনি যদি কম খরচে বেশি পরিমাণ টাকা ইনকাম করতে চান, তাহলে এই ক্যাটারি ব্যবসাটি আপনার জন্য।

ক্যাটারিং ব্যবসা কি?

ক্যাটারিং ব্যবসা হলো, বিয়ের অনুষ্ঠান জন্মদিনের অনুষ্ঠান বা বিভিন্ন পার্টি অনুষ্ঠানে খাবারের ব্যবস্থা করে দেওয়া। বর্তমান যুগে মানুষের হাতে সময় খুবই কম, যার কারণে এইসব কাজ গুলো বাইরের লোকেদের থেকে করিয়ে নিতে পছন্দ করে।

১ লাখ টাকায় ব্যবসা
কাটারিং ব্যাবসা

আপনাকে এই ব্যবসাটি শুরু করতে হলে, আপনাকে একটি সার্ভিস টিম বানাতে হবে। এই টিমের সদস্যরা মিলে খাবার তৈরি করে অনুষ্ঠানে পরিবেশন করতে হবে। আপনি যখন ক্যাটারিং এর দায়িত্ব পাবেন, তখনই খাবার তৈরি করে দিয়ে আসবেন। এই ক্যাটারিং সেবা করে দিয়ে তাদের কাছ থেকে আপনি টাকা নিয়ে নিবেন। ১ লাখ টাকায় ব্যবসা এর মধ্যে এটি অনেক জনপ্রিয়।

বাংলাদেশের সবচেয়ে কম দামে ল্যাপটপ 2022

যখন আপনার এই ব্যবসাটা রানিং হয়ে যাবে, তখন আপনি অধিক পরিমান টাকা ক্যাটারিং ব্যাবসার মধ্যেমে আয় করতে পারবেন। মনে রাখবেন, আপনার সেবা যত ভালো হবে, আপনার সেবার সুনাম তত ছড়িয়ে পড়বে। আর আপনার ব্যবসার প্রচারও তত বাড়বে। ১ লাখ টাকায় ব্যবসা এর মধ্যে এই ব্যাবসা টি সমান জনপ্রিয় হয়ে উঠছে এই সময়ে।

২- চা সিঙাড়ার দোকান দেওয়া

বর্তমান সময়ে অল্প খরচে চা সিঙারার দোকান দিয়ে আপনি বেশি টাকা ইনকাম করতে পারবেন। আপনি ১ লাখ না মাত্র  কম খরচ করেও এই ব্যবসাটি করতে পারবেন। আপনি এতো কম টাকা খরচ করে যে বেশি পরিমাণ টাকা আয় করতে পারবেন তা আপনার কল্পনায়ও নাই। বর্তমানে ছোট বড় প্রায় সবাই চা খেতে পছন্দ করে। আর চা এর সাথে বিস্কুট, কেক, পাও রুটি, সিঙাড়া আরও অনেক কিছুতো থাকছেই।

৫০ হাজার টাকায় ব্যবসা – সেরা লাভজনক ৭ টি ব্যাবসার আইডিয়া 2022

আপনি প্রথমে যেখানে মানুষের আসা যাওয়া বেশি ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বা অফিস আদালত আছে, তার আসে পাশে চা সিঙারার দোকান দিয়ে ব্যবসা শুরু করবেন।

১ লাখ টাকায় ব্যবসা এর মধ্যে হয়ত এতটাও নাও খরচ হতে পারে।  আপনি প্রথমে চা সিঙাড়া বানানোর জন্য যেসব জিনিসপত্র প্রয়োজন সেসব জিনিসপত্র কিনে নিবেন। এবং যাদের চা সিঙাড়ার দোকান আছে তাদের থেকে চা সিঙাড়া কিভাবে বানালে স্বাদ বেশি হয়, সে বিষয়ে একটা আইডিয়া নিয়ে নিবেন। তারপর আপনি এই ব্যবসা শুরু করে দিন। আপনার দোকানে যদি কাস্টমার বেশি হয়ে থাকে তাহলে আপনি কর্মচারী রেখেও কাজ করতে পারবে

৩- ফলের/ জুসের দোকান দেওয়া

অল্প টাকা খরচ করে আপনি ফলের দোকান দিয়ে বেশি টাকা ইনকাম করতে পারবেন। এই ব্যবসাটা খুবই লাভজনক ব্যবসা লাভজনক ব্যবসা। আপনি দোকান দিয়ে এই ব্যবসাটি করতে পারবেন আবার দোকান না দিয়ে রাস্তার পাশে ঠেলা গাড়িতে এই ব্যবসাটি করতে পারবেন।

১ লাখ টাকায় ব্যবসা
ফলের দোকান ব্যাবসা

১ লাখ টাকায় ব্যবসা এর জন্য আপনার খুব ভালো আইডিয়া হতে পারে এটি।  তার জন্য আপনার যেসব জায়গায় মানুষের ভিড় বেশি সেসব জায়গায় দোকান বা ঠেলা গাড়িতে ব্যাবসাটি শুরু করতে হবে। এখন আপনার মনে প্রশ্ন জাগতে পারে ব্যবসাটি শুরু করতে কি কি লাগবে? শুনুন আপনি যেহেতু ফলের দোকান দিবেন সেহেতু বিভিন্ন ধরনের ফল রাখতে হবে। ১ লাখ টাকায় ব্যবসা যদি করতে চান তাহলে এটি করতে পারেন।

১০ হাজার টাকায় ২৫ টি ব্যবসার আইডিয়া – 2022

যেমন : কমলা, লেবু, আম, ও বিভিন্ন ধরনের মৌসুমে ফল। এখন এইসব ফল থেকে জুস বের করতে হলে আপনাকে একটি জুসার (juicer) মেসিন কিনে নিবেন। তারপর আপনি এই ব্যবসা শুরু করে দিবেন।

৪- ফাস্ট ফুডের দোকান দেওয়া

আপনি যদি ১ লাখ টাকায় ব্যবসা করতে চান তাহলে এ ব্যাবসাটিও দেখতে পারেন। আপনার আর আমরা প্রায় সাবারই ফাস্ট ফুড খাবার খুব পছন্দের। যে খাবারের জনপ্রিয়তা বেশি সে খাবার বিক্রি ও হয় বেশি। আপনি একটু লক্ষ্য করলে দেখতে পাবেন, আপনার আশে পাশে ফাস্ট ফুডের দোকানে কি পরিমাণ কেনা-বেচা হয়।

পড়াশোনায় মনোযোগী হওয়ার সহজ উপায় গুলো জেনে নিন

আপনি চাইলে খুবই অল্প পরিমাণ টাকা ব্যায় করে এই ব্যবসা শুরু করতে পারেন। এর জন্য আপনার প্রথমে লোকালয় যায়গায় দোকান দিতে হবে।তারপর ফাস্ট ফুড কিভাবে বানায় তার একটি আইডিয়া নিতে হবে। তারপর ব্যবসাটি শুরু করে দিবেন। মনে রাখবেন আপনার বানানো ফাস্ট ফুড যতো স্বাদের হবে, আপনার কাস্টমার ততো বাড়বে।

৫- ইলেকট্রনিক পন্য সার্ভিসিং করা ব্যবসা

আমরা বর্তমান সময়ে ইলেকট্রনিক পন্য বেশি ব্যাবহার করে থাকি। এই ইলেকট্রনিক পন্যে বিভিন্ন ধরনের সমস্যা হয়ে থাকে। এরজন্য সার্ভিসিং এর প্রয়োজন হয়। তাই আপনি ইলেকট্রনিক পন্য সার্ভিসিং এর কোর্স করে কাজ করতে পারেন। আপনি অল্প কিছু টাকা ইনভেস্ট করে লাইফ টাইম এই কাজটি করতে পারবেন।

 

১ লাখ টাকায় ব্যবসা
ইলেকট্রনিকস ব্যাবসা

আপনি প্রথমে একটি দোকান দিয়ে এই কাজটি শুরু করবেন। আপনি ইলেকট্রনিক পন্য সার্ভিসিং করার পাশাপাশি ইলেকট্রনিক পন্য সেল করতে পারবেন। এই ব্যবসাটি করে বর্তমানে প্রচুর টাকা আয় করা সম্ভব। এর জন্য আপনাকে অবশ্যই সার্ভিসিং এর বিষয় ভালোভাবে দক্ষ হতে হবে। আপনি চাইলে আপনার দোকানে কর্মচারী রেখেও কাজ করাতে পারবেন। এ ব্যাবসা টি আপনি ১ লাখ টাকায় ব্যবসা করার মধ্যে করতে পারবেন।

বাচ্চাদের জন্য কোন সাবান ভালো – সেরা ১০ টি বাচ্চাদের সাবান এর তালিকা 2022

৬- হাঁস-মুরগী পালন

১ লাখ টাকায় ব্যবসা করতে চান? আপনি ইচ্ছে করলে হাঁস মুরগী পালন করে সাবলম্বি হতে পারেন। কিছু ছোট হাঁস- মুরগীর বাচ্চা কিনে সেগুলোকে বড় ও খাবার উপযোগী করে বিক্রি করতে পারেন। তাছাড়া এগুলোর ডিম বিক্রি করেও আপনি অর্থ উপার্যন করতে পারবেন।

চাকরি না করে ব্যবসা কেনো করবো?

বর্তমানে মানুষ চাকরি বা জব ছেড়ে ব্যবসার দিকে ঝুকে পড়ছে। কারণ চাকরি করলে মাসিক বেতনে কাজ করতে হয়, এবং আপনি যে প্রতিষ্ঠানে কাজ করেন তাদের ইচ্ছা মতো কাজ করতে হয়, কিন্তু যদি আপনি ব্যবসা শুরু করেন তাহলে আপনি নিজের ইচ্ছা মতো কাজ করতে পারবেন। আর আপনার মাসিক বেতনের জন্য অপেক্ষা থাকতে হবে না। অল্প টাকায় বেতনে অন্যের প্রতিষ্ঠানে কাজ করার চেয়ে নিজে একজন উদ্যোক্তা হয়ে নিজের প্রতিষ্ঠানে কাজ করা সম্মানজনক ও লাভজনক।

শেষ কথা

১ লাখ টাকায় ব্যবসা – আপনি ইতিমধ্যে ১ লাখ টাকায় লাভজনক ব্যবসা সম্পর্কে জেনে গেছেন। ৫০ হাজার টাকায় ব্যবসা, ৩০ হাজার টাকায় ব্যবসা ও দৈনিক আয়ের ব্যবসা সম্পর্কে আলোচনা করা হয়েছে। আপনার যে ব্যবসাটা সুবিধাজনক মনে হয়, সেই ব্যবসাটি করতে পারেন। এতক্ষণ মনোযোগ দিয়ে আর্টিকেলটি পড়ার জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ।

না পড়ে পরীক্ষায় পাশ করার উপায় গুলো কী কী – কিভাবে সহজে এ+ পাওয়া যায়?

About admin

In a world where you can have everything. Be a giver first. My hobbies are writing , gaming, and SEO 😊

View all posts by admin →

Leave a Reply

Your email address will not be published.