বিকালের নাস্তার সহজ রেসিপি – অনলাইন শিক্ষা সেবা

বিকালের নাস্তার সহজ রেসিপি

বিকালের নাস্তার সহজ রেসিপি

বিকালের নাস্তার সহজ রেসিপি: প্রতিদিন বিকেল হতে না হতেই বাসার সবার মুখে একটাই কথা শুরু হয়ে যায় কি খাবো? কি খাবো?
এই সময় আমাদের ঘরের মা,বোনেরা পরে যান মহা বিপদে! রোজ রোজ এমন কি বানিয়ে খাওয়ানো যায়? অনেকে তো রেগেই যান। রোজ রোজ এসব কি? কিন্তু মনে মনে আমাদের নিজেদেরও খাই খাই করে। বিকেলটা আসলে এমনই। পেটে ক্ষুধা না থাকলেও মনের ক্ষুদায় সবাই অস্থির হয়ে পরে।

আমাদের মা,বোনদের এই নিত্য সমস্যা থেকে সমাধান নিয়েই আজ আমরা এসেছি।
বিকেলের নাস্তার সহজ কিছু রেসিপি নিয়ে। যেগুলো খুব কম সময়ে দ্রুত বানানো যাবে। আর খেতেও সুস্বাদু তো বটেই।

আজকের আর্টিকেলে দেখবো বিকালের নাস্তার সহজ রেসিপি গুলো নিয়ে। অনেকেই বিকালে কোন নাস্তা বানিয়ে পরিবেশন করবেন এ সম্পর্কে ভালো ভাবে জানেন না। জানলেও বিকালের নাস্তার রেসিপি সম্পর্কে জ্ঞাত না। আপনাদের সুবিধার্থে আমরা বেশ কয়েকটি বিকালের নাস্তার সহজ রেসিপি দিয়ে দিলাম। অনেকেই গুগলে এ সম্পর্কে ভালোভাবে খুজে থাকেন।

নুডুলসের পকোড়া- বিকালের নাস্তার সহজ রেসিপি

আমরা অনেকেই নুডুলস শুধু রান্না করতে যানি bএটা দিয়ে কিন্তু অনেক মজার মজার আরও সহজ আইটেম তৈরি করা যায়! সে সম্পর্কে জানিনা। আপনার বিকালের নাস্তার সাথে যোগ করে নিতে পারেন বিকালের নাস্তার সহজ এই রেসিপি কে।

  • নুডলসের পাকোড়া উপকরণঃ
    নুডুলস।
    ডিম।
    লবন।
    পেয়াজ।
    কাঁচা মরিচ।
    বেসন।
    ধনে পাতা।
    তেল।

প্রস্তুত প্রনালী

একটি হাড়িতে অল্প পরিমানে পানি নিয়ে তাতে নুডুলসগুলো সেদ্ধ করে নিতে হবে। একেবারে বেশি সেদ্ধ করা যাবে না। তাতে পকোড়া খেতে ভালো হবে না। এবার একটি বাটিতে সেদ্ধ কিরা নুডুলস ঢেলে নেই। পেয়াজ,কাঁচা মরিচ, ধনে পাতা ভালো ভাবে ধুয়ে কুচি কুচি করে কেটে সেদ্ধ করা নুডুলসের মধ্যে দিয়ে দিয়ে হবে। এখন ১ টেবিল চামচ পরিমান বেসন দিয়ে দিতে হবে। এবার একটি ডিম ও পরিমানমতো লবন দিয়ে মিশ্রণটিকে হাত দিয়ে ভালোভাবে মিশিয়ে নিতে হবে। এবার আপনার পছন্দমতো আকৃতি দিয়ে নিতে পারেন। গোল, লম্বা যার যেমন পছন্দ। এবার ভাজার পালা।

একটি কড়াইয়ে তেল গরম করতে দিন। তেল ভালোভাবে গরম হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। ভালোভাবে গরম না হলে সেই তেলে কখনও পকোড়া ভাজতে যবেন না। কারন তাতে পকোড়া গুলো খেতে মচমচা হবে না। তেল ভালোভাবে গরম হয়ে গেলে পকোড়া গুলো ভেজে নিন। ভাজার সময় চুলার আঁচ কমিয়ে নিবেন নাহলে পুড়ে যেতে পারে। এই নুডুলসের পকোড়া ভাজতে বেশি সময় লাগবে না কারন নুডুলসতো আগে থেকেই সেদ্ধ করা। ভাজা হয়ে গেলে চুলা থেকে নামিয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন। এভাবেই আপনি সহজ ভাবে বিকেলের নাস্তার সহজ রেসিপি দিয়ে নাস্তা তৈরি করতে পারবেন।

আলুর ফুচকা- বিকালের নাস্তার সহজ রেসিপি

আমাদের প্রতিদিনকার জীবনে বিকেলের নাস্তার সহজ রেসিপি হতে পারে আলুর ফুচকা। বিকালে একটু ভাজাপোড়া খাওয়ার অভ্যাস যাদের রয়েছে নিশ্চিত ভাবেই বিকেলের নাস্তার সহজ রেসিপি টি চেষ্টা করতে পারেন।

সালাতুত হাজত নামাজের নিয়ম ও নিয়ত – 2022

  • উপকরণঃ
    আলু।
    ডিম।
    কাঁচা মরিচ।
    ধঁনে পাতা।
    লবন।
    শুকনা মরিচ।
    তেল।
    তেতুল।
    ফুচকা।

প্রস্তুত প্রনালী

আলুর ফুচকা বানানোর জন্য প্রথমে আলু গুলো সেদ্ধ করে আলুর খোসা ছাড়িয়ে নিতে হবে, ছাড়িয়ে নিয়ে আলুগুলো ভালো করে ব্লেন্ড করতে হবে অর্থাৎ মিহি করে করতে হবে যেমনটা আমরা ভর্তা করি, সাথে ডিম সিদ্ধ করে কুচি কুচি করে রাখতে হবে।
ব্লেন্ড করার শেষে এটি আলাদা করে রাখতে হবে। পিঁয়াজ, কাঁচামরিচ, ধনিয়া পাতা কুচি করে, শুকনা মরিচ ভালো করে হাত দিয়ে পিষে নিতে হবে।
বিকালের নাস্তার সহজ রেসিপি হিসেবে এটি বেশ কাজের কি বলেন? এসবগুলো উপকরণ একসাথে মিক্সড করে আর রাখা যে আলুটা ব্লেন্ড করা ছিল সে সবগুলো একসাথে মাখাতে হবে স্বাদ মত লবণ দিতে হবে।

মরিচ আপনাদের যে যেমন ঝাল খায় তেমন দিয়ে দিতে পারেন। তবে ভর্তার মধ্যে তেল না দেই কারণ আলু ফুচকার মধ্যে আমরা অনেক আলু খাওয়া পড়ে তেল দিলে আবার এসিডিটি হতে পারে তাই ভর্তায় তেল না দেওয়াই ভালো।

এবার হলো তেতুলের টক বানানোর পালা। এটা খুবই সহজ। তেতুলের সাথে পরিমানমতো পানি,লবন,শুকনা মরিচ দিয়ে ভালোভাবে মিশিয়ে নিলেই হয়ে যাবে।
ফুচকাটা দোকানে কিনতে পাওয়া যায় সেটা বাসায় ভেজে নিলেই হয়ে যায়। ইচ্ছে হলে নিজেরা বানিয়েও নিতে পারেন।

এবার ভাজা ফুচকার মধ্যে আলু ভর্তা,এবং উপরে শসা, কাঁচা মরিচ,ডিম কুচি,ছিটিয়ে দিয়ে টকে চুবিয়ে ফেললেই তৈরি হয়ে গেল মজাদার আলুর ফুচকা। বিকেলের নাস্তার সহজ রেসিপি হিসেবে এটি ব্যাবহার করতে পারেন আপনিও।

আলুর পকোড়া বা আলু বড়া- বিকালের নাস্তার সহজ রেসিপি

আপনি যদি একদম সহজ ভাবে বিকালের নাস্তা তৈরি করতে চান তাহলে আপনার জন্য বিকেলের নাস্তার সহজ রেসিপি হিসেবে এটা বেশ ভালো ভাবে সহায়তা করবে আপনাকে। নিচে থেকে রেসিপি ব্যাবহারের নিয়ম গুলো ভালো ভাবে দেখে নিন।

  • উপকরনঃ
    আলু।
    কাচা মরিচ।
    পেয়াজ।
    লবন।
    চাল।
    ডাল।
    ডিম।
    শুকনা মরিচ।
    হ্লুদের গুড়া।

প্রস্তুত প্রনালী

বিকেলের নাস্তার সহজ রেসিপি বানানোর জন্য প্রথমে কিছু আলো কুচিকুচি করে নিতে হবে তারপর আলুগুলো ধুয়ে একটি ঝাঁপিতে রাখতে হবে যেন পানি সবটুকু সেকে যায়। এর সাথে অল্প কিছু চাল,ডাল হাফ ব্লেন্ড করে নিতে হবে, যার সুবিধা মত ব্লেন্ডারে বা শিলায় পিশে নিলেই হবে। ডাল এবং চাল আগে থেকে ভিজিয়ে রাখতে হবে।একটা কাঁচা ডিম এর কিছু পরিমাণ অংশ,

মেয়েদের রুপচর্চা – করার ঘড়োয়া পদ্ধতি ও শরিরের যত্ন

পিঁয়াজ,কাঁচা মরিচ/ শুকনা মরিচ পছন্দ মত,হলুদের গুড়ো,এ সব গুলো উপকরণ পরিমান মতো নিয়ে এবং প্রথমে রেখে দেয়া,আলু কুচি,চাল, ডাল এর ব্লেন্ড পরিমান মতো দিতে হবে স্বাদ মতো লবন দিয়ে ভালো করে মিক্সড করে ডুবন্ত তেলে মাঝারি আচে ভেজে নিলেই তৈরি হয়ে যাবে আলুর পকোড়া বা আলুর বড়া। বিকেলের নাস্তার সহজ রেসিপি হিসেবে চেষ্টা করতে পারেন আপনিও।

লাচ্ছি – বিকালের নাস্তার সহজ রেসিপি

এই গরমে বিকেলের টাইমে এক গ্লাস লাচ্ছি হলে পরিবারে সবাই খুশি হয়ে যাবে। গরমের সময়ে প্রশান্তি কে না চায়? বিকালের নাস্তার সহজ রেসিপি হিসেবে সারাদিনের সকল ক্লান্তি দূর করার জন্য ব্যাবহার করতে পারেন এটিও।

  • উপকরণঃ
    টক দই।
    পানি।
    চিনি।
    লবন।
    বিট লবন।

প্রস্তুত প্রনালী

সবগুলো উপকরণ পরিমাণ মতো নিয়ে একটা ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করে নিন।
এবার ঠান্ডা ঠান্ডা পরিবেশন করুন।
দেখবেন সবাই দেখা মাত্রই খুশি হয়ে যাবে। বিকালের নাস্তার সহজ রেসিপি হিসেবে লাচ্ছি কেই বেশী পরিমানে প্রধান্য দেয়া হয়ে থাকে।

About admin

In a world where you can have everything. Be a giver first. My hobbies are writing , gaming, and SEO 😊

View all posts by admin →

Leave a Reply

Your email address will not be published.