বাংলাদেশের সবচেয়ে কম দামে ল্যাপটপ 2022

বাংলাদেশের সবচেয়ে কম দামে ল্যাপটপ

বাংলাদেশের সবচেয়ে কম দামে ল্যাপটপ  ও সস্তায় সেকেন্ড হ্যান্ড ল্যাপটপ

বাংলাদেশের সবচেয়ে কম দামে ল্যাপটপ– আধুনিক এই যুগে ল্যাপটপের প্রয়োজনীয়তা যেন দিন দিন বেড়েই চলেছে৷ বর্তমান এই লোডশেডিং এর মধ্যে কম্পিউটার দিয়ে প্রয়োজনীয় জরুরি কাজ গুলো করতে পোহাতে হচ্ছে নানান ধরনের ঝামেলা। ল্যাপটপে ব্যাকাপ ব্যাটারি থাকায় বিদ্যুৎ না থাকলেও ৫/৬ ঘন্টা অনায়াসে কাজ করে নেয়া সম্ভব। বাংলাদেশের সবচেয়ে কম দামে ল্যাপটপ অনেকেই খুজে থাকেন। উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন ল্যাপটপ গুলোর দাম অনেক বেশী থাকায় অনেকেই কিনতে পারেন না। মোটামোটি কনফিগারেসন এর ল্যাপটপ গুলো নতুন কন্ডিশনে কম দামে পাওয়া যায়।

আমাদের আজকের আর্টিকেলে বাংলাদেশের সবচেয়ে কম দামে ল্যাপটপ কোথায় পাওয়া যায়। কোন ল্যাপটপ গুলোর দাম অনেক কম ইত্যাদি সকল বিষয় গুলো নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করবো। আপনারা যারা অল্প বাজেটের মধ্যে ল্যাপটপ খুজে থাকেন তাদের অনেক বেশী সহায়তা করবে আজকের আর্টিকেল টি।

ল্যাপটপ কি

ল্যাপটপ হলো ব্যাক্তিগত কম্পিউটার যা ডেক্সটপ কম্পিউটার এর থেকে ওজনে ও সাইজে অনেক টা ছোট হয়। ডেস্কটপ কম্পিউটার ব্যাবহার করতে বিদ্যুৎ এর সংযোগ দিতে হবে। তবে ল্যাপটে AC পাওয়ার অর্থ্যাৎ ব্যাটারির মাধ্যমে ব্যবহার করা যায়। সরাসরি বিদ্যুৎ স্থাপন না করেই অনেক সময় পর্যন্ত ব্যাবহার করা যায়। ল্যাপটপ কে নোটবুক কম্পিউটার নামে ও ডাকা হয়ে থাকে। যে কোনো স্থানে সহজেই বহন করা যায়। ডেক্সটপ কম্পিউটার আপনার ডেক্সে সকল সংযোগ দেয়ার পরে কাজ করে তবে ল্যাপটপে ব্যাটারি চার্জের মাধ্যমে যে কোনো স্থানে বসে কম্পিউটার এর সকল কার্যাবলী সম্পন্ন করতে পারবেন।

বাংলাদেশের সবচেয়ে কম দামে ল্যাপটপ

আমাদের সকলের প্রায় ইচ্ছা থাকে একটি ল্যাপটপ কেনার। কেউ কেউ হয়ত ফ্রিল্যান্সিং করার জন্য ল্যাপটপ খুজেন আবার কেউ গ্রাফিক্স ডিজাইন এর জন্য ল্যাপটপ খুজেন। বিশেষ করে, ২০২২ সালে গেমিং ল্যাপটপ গুলো বাজারে অনেক বেশী পরিমানে আসায় পুরাতন মডেল গুলোর দাম অনেকাংসে কমে গেছে। বাংলাদেশের সবচেয়ে কম দামে ল্যাপটপ যদি আপনি খুজে থাকেন তাহলে সেকেন্ড হ্যান্ড ল্যাপটপ শোরুম থেকেও আপনি কিনে নিতে পারেন। এ ছাড়াও আজকের পোষ্টে কম দামে ল্যাপটপ নিয়ে থাকবে আলোচনা।

ওয়ালটন ফ্রিজ এর মূল্য তালিকা – walton refrigerator price in bangladesh 2022

বাংলাদেশের সবচেয়ে কম দামে ল্যাপটপ এর তালিকা। যা একেবারেই নতুন কন্ডিশনে এই দামের মধ্যে ক্রয় করে নিতে পারবেন। কম দামে নতুন ৫ টি ল্যাপটপ-

Walton Prelude N5000A

বাংলাদেশের সবচেয়ে কম দামে ল্যাপটপ
বাংলাদেশের সবচেয়ে কম দামে ল্যাপটপ

আমাদের দেশীয় ইলেকট্রনিকস পণ্য তৈরিতে ওয়ালটন এর বেশ সুনাম লক্ষ্যনিয়৷ বাংলাদেশের সবচেয়ে কম দামে ল্যাপটপ হিসেবেও তাদের বাজারে রয়েছে স্বল্প দামের মধ্যে মোটামুটি বাজেট এর ল্যাপটপ। এই ল্যাপটপ ফেসবুক ব্রাউজিং, অনলাইন এর টুকটাক কাজ, ভিডিও স্ট্রিমিং, ফটোশপ ইত্যাদি রেগুলার কাজে বেশ ভালো পারফরম্যান্স পাবেন। যদি অতি ভারী কাজ করতে যান সেক্ষেত্রে ল্যাগ বা হ্যাং করতে পারে। নিচে ল্যাপটপ টির গুরুত্বপূর্ণ স্পেশিফিকেশন দেয়া আছে-

ল্যাপটপের নামঃ Walton Prelude N5000A
প্রসেসরঃ Intel Pentium Silver N5000 Processor
র‍্যামঃ ৪ জিবি।
স্টোরেজঃ ২৫৬ জিবি।
এসএসডিঃ ২২৮০
গ্রাফিক্সঃ Intel UHD Graphics 605
অপারেটিং সিস্টেমঃ Windows 10
ব্যাটারিঃ Removable 4 cells Smart
অতিরিক্ত র‍্যাম স্লটঃ আছে
অতিরিক্ত স্টোরেজ স্লটঃ আছে
ওজনঃ ১.৮ কেজি
দামঃ ২৯ হাজার ২৯০ টাকা।

Dell Inspiron 15 3510

বাংলাদেশের সবচেয়ে কম দামে ল্যাপটপ গুলোর মধ্যে এটি সেরা একটি ল্যাপটপ। আপনি যদি একেবারে নতুন কন্ডিশনের ল্যাপটপ স্বল্প দামের মধ্যে নিতে পারবেন। অল্প বাজেটের ল্যাপটপ গুলোর মধ্যে ডেল ব্রান্ডের জনপ্রিয়তা বেশ ভালো। অন্যান্য ল্যাপটপের তুলনায় এই বাজেটে প্রাসেসর এর দিক থেকে এটি সেরা। নিচে ল্যাপটপ টির গুরুত্বপূর্ণ স্পেশিফিকেশন দেয়া আছে-

বাংলাদেশের সবচেয়ে কম দামে ল্যাপটপ
বাংলাদেশের সবচেয়ে কম দামে ল্যাপটপ

ল্যাপটপের নামঃ Dell Inspiron 15 3510
প্রসেসরঃ Intel Celeron N4020 Dual Core
র‍্যামঃ ৪ জিবি
স্টোরেজঃ ১ হাজার জিবি।
এসএসডিঃ নেই
গ্রাফিক্সঃ Intel UHD Graphics 600
অপারেটিং সিস্টেমঃ Windows 10 Home
ব্যাটারিঃ 3 Cell
অতিরিক্ত র‍্যাম স্লটঃ নেই
অতিরিক্ত স্টোরেজ স্লটঃ নেই
ওজনঃ ১.৬৫ কেজি
দামঃ ৩৫ হাজার টাকা।

ইংরেজি ভাষা জনপ্রিয় হওয়ার কারণ জানুন

ASUS X441 MA

যারা একদম কম দামের মধ্যে ল্যাপটপ খুজে থাকেন তাদের কাছে ASUS X441 MA ল্যাপটপ টি অনেক ভালো হবে। আপনি যদি টুকটাক ব্রাউজিং, ভিডিও দেখা, ফটোশপ করা ইত্যাদি কাজের জন্য বাংলাদেশের সবচেয়ে কম দামে ল্যাপটপ ক্রয় করতে চান তাহলে এটি ক্রয় করতে পারেন। Celeron N 4000 CPU ব্যাবহার করা হয়েছে অতিরিক্ত ফিচার হিসেবে। বর্তমান সময়ের অতি জনপ্রিয় “টাইপ-সি” ব্যাবহার করতে পারবেন।নিচে ল্যাপটপ টির গুরুত্বপূর্ণ স্পেশিফিকেশন দেয়া আছে-

ল্যাপটপের নামঃ ASUS X441 MA
প্রসেসরঃ Intel Celeron N4000
র‍্যামঃ ৪ জিবি ডি ডি আর।
স্টোরেজঃ ১ হাজার জিবি।
এক্সপেনশন স্লটঃ নেই।
এস এস ডি স্লটঃ নেই।
ডিভিডি ড্রাইভঃ ১ টি।
হাইয়েস্ট র‍্যাম সাপোর্টঃ ৪ জিবি।
ডিসপ্লে সাইজঃ ১৪ ইঞ্চি এইচডি।
র‍্যাম ইন্টেলঃ UHD graphics 600
অপারেটিং সিস্টেমঃ Windows 10
দামঃ ২৬ হাজার ৫০০ টাকা।

ASUS X509MA

বাংলাদেশের সবচেয়ে কম দামে ল্যাপটপ এর মধ্যে এটি অন্যতম যায়গা দখল করে নিয়েছে। আপনার বাজেট এর পরিমান যদি ২৬/২৯ হাজার মধ্যে ফিক্সড থাকে তাহলে এই ল্যাপটপ টি ক্রয় করতে পারেন। সাধারণ সব কাজ করার জন্য এটি বেশ ভালো ভাবেই কাজ করবে। তবে আপনি যদি ভারি কাজ করতে চান তাহলে এটি নক নেয়া ভালো হবে। বর্তমান সময়ের ইউএসবি “টাইপ-সি” ব্যাবহার করা হয়েছে। নিচে ল্যাপটপ টির গুরুত্বপূর্ণ স্পেশিফিকেশন দেয়া আছে-

ল্যাপটপের নামঃ ASUS X509MA
প্রসেসরঃ Intel Celeron N4020
র‍্যামঃ ৪ জিবি।
স্টোরেজঃ ১ হাজার জিবি
এক্সপেনশন স্লটঃ নেই
এস এস ডি স্লটঃ ১ টি
ডিভিডি ড্রাইভঃ
হাইয়েস্ট র‍্যাম সাপোর্টঃ ৮ জিবি
ডিসপ্লে সাইজঃ ১৫.৬ ইঞ্চি এইচডি
র‍্যাম ইন্টেলঃ UHD graphics 600
অপারেটিং সিস্টেমঃ WINDOWS 10
দামঃ ২৯ হাজার টাকা৷

১০ হাজার টাকায় ২৫ টি ব্যবসার আইডিয়া – 2022

AVITA Essential 14

বাংলাদেশের সবচেয়ে কম দামে ল্যাপটপ গুলোর মধ্যে এটি আপনাকে বেশ ভালোভাবে সাহায্য করবে। ছোট খাটো কাজ করার জন্য এই ল্যাপটপ টি বেশ ভালো কাজ করবে। ব্যাটারি ব্যাকাপ প্রায় ৩/৪ ঘন্টার মতন পাওয়া যাবে৷ সাথে ২ বছর ওয়ারেন্টি পাওয়া যাবে যদি আপনি অনলাইন শপ গুলো থেকে নিয়ে থাকেন। নিচে ল্যাপটপ টির গুরুত্বপূর্ণ স্পেশিফিকেশন দেয়া আছে-

ল্যাপটপের নামঃ AVITA Essential 14
প্রসেসরঃ Intel Celeron Processor N4020
র‍্যামঃ ৪ জিবি
স্টোরেজঃ ২৫৬ জিবি।
এক্সপেনশন স্লটঃ নেই
এস এস ডি স্লটঃ নেই
ডিভিডি ড্রাইভঃ
হাইয়েস্ট র‍্যাম সাপোর্টঃ ৪ জিবি
ডিসপ্লে সাইজঃ ১৪ ইঞ্চি এইচডি
গ্রাফিক্সঃ Intel UHD Graphics 600
অপারেটিং সিস্টেমঃ Windows 10
দামঃ ৩১ হাজার টাকা।

বাংলাদেশের সবচেয়ে কম দামে সেকেন্ড  হ্যান্ড ল্যাপটপ শোরুম

বাংলাদেশের সবচেয়ে কম দামে ল্যাপটপ ক্রয় করতে চাইলে আপনি ব্যাবহার করা অর্থ্যাৎ সেকেন্ড হ্যান্ড ল্যাপটপ ক্রয় করতে পারেন। এ ক্ষেত্রে আপনি বেশ দামী ল্যাপটপ গুলো স্বল্প দামের মধ্যে নিতে পারবেন। বাংলাদেশে একটা মোটামুটি কনফিগারেশন এর ল্যাপটপ এর দাম পরে যায় ৫০/৬০ হাজার এর বেশী করে। কম দামে যারা ল্যাপটপ কিনতে আগ্রহী তাদের কাছে এত বেশী টাকায় ল্যাপটপ কেনা অনেক টা অসম্ভব। আপনারা চাইলেই সেকেন্ড হ্যান্ড ল্যাপটপ ক্রয় করতে পারেন।

চীনের বাজারে 1 নম্বর মোবাইল ব্র্যান্ড কোনটি – 2022

বাংলাদশে অনেকে সেকেন্ড হ্যান্ড ল্যাপটপ এর শোরুম রয়েছে। আপনি ভালো কোনো শোরুম থেকে যদি ক্রয় করতে চান তাহলে নিচের ভিডিও টি দেখতে পারেন। এখানে দেয়া শোরুমে থাকা ল্যাপটপের দাম ও মান সম্পর্কে আপনার অনেক ভালো আইডিয়া পেয়ে যাবেন।

শেষ কথা

বাংলাদেশের সবচেয়ে কম দামে ল্যাপটপ পোষ্টে দেয়া প্রতিটি ল্যাপটপের দামের সামান্য কিছু তারতম্য হতে পারে। যেহেতু ল্যাপটপের দাম দিন দিন হ্রাস ও বৃদ্ধি পায় তাই সঠিক দাম কত থাকবে সেটা বলা অনেক টা মুশকিল। এখানে দেয়া দামের থেকে কিছুটা কম বা বেশী হতে পারে। আর্টিকেল টি পড়ার জন্য অনেক ধন্যবাদ।

About admin

In a world where you can have everything. Be a giver first. My hobbies are writing , gaming, and SEO 😊

View all posts by admin →

Leave a Reply

Your email address will not be published.