ফটো এডিট করার ভালো এপ্স কোনটি – Best 5 Photo Editing Apps

ফটো এডিট করার ভালো এপ্স কোনটি

ফটো এডিট করার ভালো এপ্স কোনটি

প্রফেশনাল মানের ফটো এডিট করার জন্য সবচেয়ে বেশি দরকারী হলো ভালো একটি ফটো এডিট করার এপ্স।  এপ্স এর ফিচার যত বেশী থাকবে আপনি তত বেশী সুবিধা ভোগ করতে পারবেন।  বর্তমান সময়টা আসলে সোশ্যাল মিডিয়ার যুগ। বর্তমানে আমরা প্রায় সময়েই ঘুরতে গেলে,  রেস্টুরেন্টে গেলে বিভিন্ন ধরণের সেল্ফি কিংবা ফটো ধারণ করে থাকি। 

তবে সকলের কাছে ভালো ক্যামেরা স্মার্টফোন না থাকায় ছবির কোয়ালিটি ভালো আসেনা খুব একটা।  এর জন্য আমাদের দরকার হয় একটি ফটো এডিট করার ভাল এপ্স।  আমরা আজকে সেরা ০৫ টি ফটো এডিট করার এপ্স সম্পর্কে আপনাদের কে জানাবো।  এখান, থেকে আপনার পছন্দ ও কাজের ধরণ অনুযায়ী যে কোনো একটি দিয়ে আপনার পছন্দ মত ফটো এডিট করতে পারবেন। 

ফটো এডিট করার ভালো এপ্স কোনটি – Best Photo Editing apps bangla

ইন্টারনেটে অনেকেই খুজে থাকেন ফটো এডিট করার ভালো এপ্স কোনটি যেখানে আপনি আপনার ইচ্ছামত ছবিতে ইফেক্ট ও ফিল্টার ব্যবহার করে প্রফেশনাল করতে পারবেন।  কিন্তু ভালো আর্টিকেল অনেকেই খুজে পান না। তাই আমাদের আজকের আর্টিকেল টি বিস্তারিত ভাবে পড়ুন তাহলে আপনি জানতে পারবেন ফটো এডিট করার ভালো এপ্স কোনটি সে সম্পর্কে।  নিচে আমরা ফটো এডিট করার সেরা ০৫ টি এপ্স সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য দিয়ে দিলামঃ- 

1- Snapsed  – ফটো এডিট করার এপ্স

বর্তমানে সবচেয়ে জনপ্রিয় একটি মোবাইল ফটো এডিটিং এপ্স হলো Snapseed এটি আপনারা একদম বিনামূল্যে ব্যবহার করতে পারবেন। এপ্সটির ডেপলপার এত সহজ ভাবে এপ্স টি তৈরি করেছে যে,  যারা বিগিনার লেভেল এর ফটো এডিট করতে চাচ্ছে তারা চাইলে সহজেই এটি দিয়ে এডিট করে নিতে পারবে। 

ফটো এডিট করার ভালো এপ্স কোনটি
Snapseed Photo editing apps

Snapseed এর মাধ্যমে আপনি আপনার ছবি কে রি-টাচ করে ফটোর যে কোনো দাগ / স্পট কে মুছে ফেলতে পারবেন।  জুম ইন করে ছবির বিভিন্ন স্থানের আলো বাড়াতে ও কমাতে পারবেন৷  মূলত যারা নিজেদের ফটো এডিট করার ভালো এপ্স কোনটি জানতে চান তাহলে এই এপ্স টি আপনাদের ব্যবহার করা উচিৎ হবে৷ 

আরো পড়ুন-

আকাশ ডিশ এন্টেনার দাম কত – Akash dth price bangladesh- 2022

ছবির অপ্রয়োজনীয় ব্যাকগ্রাউন্ড আপনি সিলেক্ট করে রিমুভ করে নিতে পারবেন।  ফটো এডিট এর ক্ষেত্রে কোনো প্রকার ভুল হলে পূনরায় সেটাকে “undo” করে নিতে পারবেন। এক্সপোজার বাড়াতে কমাতে পারবেন,  প্রচুর পরিমানে ফিল্টার ইফেক্ট রয়েছে এপ্স টিতে যা আপনার ছবি কে আরো বেশী আকর্ষণীয় করে তুলবে। 

Snapseed এপ এর বৈশিষ্টঃ

  • স্নাপসেড সম্পুর্ন ফ্রি একটি ফটো এডিটিং মোবাইল এপস।  
  • এন্ড্রয়েড ও আই ওএস অপারেটিং সিস্টেমে ইন্সটল করতে পারবেন।  
  • খুব সিম্পল ডিজাইন হওয়ার কারণে সহজেই ফটো ক্রপ, ছবির সাইজ কমানো / বাড়ানোর কাজ করে নেয়া যাবে, ফটো রিসাইজ ও করে নিতে পারবেন। 
  • ফটোর মধ্যে পর্যাপ্ত আলোত ঘাটতি থাকলে নির্দিষ্ট স্থান সিলেক্ট করে।  আলো কমাতে বাড়াতে পারবেন। 
  • যে কোনো ফটোর ব্যাকগ্রাউন্ড পরিবর্তন করে আপনার পছন্দের ব্যাকগ্রাউন্ড যোগ করতে পারবেন। 

2- Adobe Photoshop Express 

কম্পিউটারে ফটো এডিট করার জন্য সবচেয়ে পরিচিত একটি সফটওয়্যার হলো – এডোবি ফটোশপ। তবে এডবি ফটোশপ এক্সপ্রেস হলো মোবাইল ভার্সন এর জন্য তৈরি করা।  ফটোশপ এর সকল ফিচার এটির মধ্যে নেই৷  তবে মোবাইলের ফটো এডিট করার জন্য খুব ভালোভাবে কাজ করে এটি।  

আরো পড়ুন-

অনলাইন থেকে আয় করার ৫ টি উপায় – বিস্তারিত জানুন 2022

যে কোনো ফরম্যাট এর ইমেজ কে এটি সাপোর্ট করে।  বিশেষ করে,  আপনি অনলাইন থেকে ছবির বিভিন্ন ফিল্টার  সরাসরি আপনার ছবিতে ও যুক্ত করতে পারবেন।  ফটো এডিট করার জন্য ভালো এপ্স কোনটি? জানতে চাইলে এটি দেখে নিতে পারেন।  

ফটো এডিট করার ভালো এপ্স কোনটি
Adobe Photoshop Express

এই এপ থেকে ছবির আলো,  সিচুয়েশন,  ক্রপ,  রিসাইজিং,  ফিল্টার ব্যবহার করতে পারবেন।  এটি আপনারা সরাসরি প্লেস্টোর থেকেই ইন্সটল করে নিতে পারবেন।  

এডবি ফটোশপ এক্সপ্রেস এর বৈশিষ্টঃ 

  • প্রফেশনাল মানের ফটো এডিটিং করতে পারবেন। 
  • এটির লেয়াউট অনেক বেশি ইউজার ফ্রেন্ডলি। 
  • স্টোরে অনেক স্টিকার প্যাক সহ বিভিন্ন ফিল্টার রয়েছে।  যা সেখান থেকে ব্যবহার করতে পারবেন। 
  • ফটো দিয়ে কোলাজ তৈরি করে নিতে পারবেন।
  • RAW ফটো এডিট করতে পারবেন। 
  • ফটোর কালার পরিবর্তন করতে পারবেন।

3- Picsart 

Picsart অনেক পুরোনো একটি ফটো এডিট করার এপ্স।  যারা ফটো এডিট এর জন্য ভালো একটি এপ্স খুজেন তাদের জন্য এটি সেরা হবে।  Picsart  এর আপনি প্রিমিয়াম ও ফ্রি দুই ভাবেই ব্যবহার করতে পারবেন।  প্রিমিয়াম এর ক্ষেত্রে আপনি সব  ফিচার গুলো ব্যবহার করতে পারবেন।  ব্যাসিক ফ্রি ইউজার এর ক্ষেত্রে লিমিটেড ব্যবহার করা যাবে।

আরো পড়ুন-

গেম খেলে টাকা আয় – Bitcoin Pop দিয়ে মোবাইল দিয়ে আয় করুন সহজেই – 2022

এই এপে রয়েছে প্রচুর ফিচার।  যে কোনো ছবি কে প্রফেশনাল ভাবে এডিট করতে চাইলে এই এপ্স লাগবেই।  বিশেষ করে,  Picsart এর স্টোর থেকে বিভিন্ন এডিট করা ছবি এর টেমপ্লেট দিয়ে আপনি মাত্র ১ মিনিটেই আপনার যে কোনো ফটো কে সুন্দর ভাবে এডিট করে ফেলতে পারবেন। 

ফটো এডিট করার ভালো এপ্স কোনটি
Picsart

হাজার এর উপরে রয়েছে ফিল্টার৷  এই এপ দিয়ে আপনি আর্ট এর কাজ করে নিতে পারবেন। আপনি যদি প্রিমিয়াম ব্যবহার কারী হোন তাহলে ১ মিনিটেই যে কোনো ফটোর ব্যাকগ্রাউন্ড পরিবর্তন করে ফেলতে পারবেন।  যারা অনেক আগে থেকেই ফটো এডিট করতে পছন্দ করেন তাদের কাছে Picsart সবচেয়ে সেরা একটি ফটো এডিট করার এপ্স।  

পিকস-আর্ট এপ্স এর বৈশিষ্টঃ 

  • প্রিমিয়াম ও ফ্রি দুটো ভার্সনেই ব্যবহার করা যাবে। 
  • সহজ ডিজাইন এর কারণে যে কোনো মানুষ ফটো এডিট করতে পারবে।
  • স্টোর থেকে ফটো প্রিসেট ব্যবহার করতে পারবেন। 
  • ছবিতে অনেক ধরণের ফিল্টার ব্যবহার করতে পারবেন।
  • মোবাইল এর মাধ্যমে সহজেই আপনি আর্টের কাজ করে নিতে পারবেন।
  • Picsart দিয়ে আপনি GIF,  PNJ, MP4 ফরম্যাটে ছবি বা ভিডিও তৈরি করতে পারবেন। 

4- Adobe Lightroom 

যে কোনো ফটো কে সুন্দর ভাবে ফুটিয়ে তোলার জন্য কালার গ্রেডিং অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা পালণ করে।  ফটোর আলো এডজাস্টমেন্ট যদি ভালো না হয় তবে কখনোই ফটো ফুটে উঠে না।  আমরা যখন কোনো ফটো তুলি।  সাধারণ ভাবেই ছবির কোনো কোনো অংশে আলোত কমতি দেখা যায়।  কোনো কোনো স্থানে কালার সঠিক ভাবে আসে না।  

ফটো এডিট করার ভালো এপ্স কোনটি
Lightroom

এসব দিক গুলো কে ঠিক করে ছবির মান আরো বাড়াতে হলে ব্যবহার করতে হবে এডবি লাইটরুম বর্তমান সময়ে মোবাইল দিয়ে ফটো এডিট করার জন্য এডবি লাইটরুম অত্যন্ত জনপ্রিয় একটি এপ্স। ফটো এডিট করার ভালো এপ্স কোনটি যদি জানতে চান তবে এটি ও তার মধ্যে রাখতে হয়। 

আরো পড়ুন-

ওয়ালটন চার্জার ফ্যানের দাম ২০২২ – দেখে নিন ওয়াল্টনের সেরা ৫ টি চার্জার ফ্যানের দাম

এডবি লাইটরুম এপ্স এর বৈশিষ্ট 

  • অনেক ধরনের প্রিসেট ব্যবহার করতে পারবেন।
  • এপ স্টোরে প্রায় ৫০০+ অসাধারণ ছবির প্রিসেট রয়েছে। 
  • নিজস্ব প্রিসেট তৈরি করে ব্যবহার করতে পারবেন।  আপনি চাইলে সেটা বন্ধুদের মাঝেও দিতে পারবেন।
  • আলো,  সিচুয়েশন, কন্স্রটাক, হাইলাইট ইত্যাদি এডজাস্ট করতে পারবেন। 
  • ছবির ব্যকগ্রাউন্ড কালার পরিবর্তন করতে পারবেন।
  • আপনি চাইলে প্রিমিয়াম সেবা ও ব্যাবহার করতে পারবেন।

5- Light X Photo Editor 

বর্তমানে সেরা একটি ফটো এডিটিং এপ্স হলো এটি।  ফটো এডিট করার ভালো এপ্স কোনটি যদি বলা হয় তবে LightX কে তালিকায় রাখতেই হবে।  আপনার যদি ফটো এর মুখমন্ডল এডিট করার প্রয়োজন হয় তবে এটি আপনার সবচেয়ে সেরা ফটো এডিট করার এপ্স হবে। 

ফটো এডিট করার ভালো এপ্স কোনটি
Light X

এটি দিতে খুব সহজেই যে কোনো ছবির দাগ রিমুভ করে দিতে পারবেন।  ছবি কে রিটাচ করার মাধ্যমে আরো বেশী আকর্ষণীয় করে তুলতে পারবেন। এই এপ্সে ফটো এডিট করার জন্য অসংখ্য টুলস রয়েছে যা সহজেই আপনি ব্যবহার করতে পারবেন।  যাইহোক নিচে থেকে এপ্স টির বৈশিষ্ট দেখে নিন।  

আরো পড়ুন-

ভিশন ফ্রিজ প্রাইস ইন বাংলাদেশ – ভিশন ফ্রিজের মূল্য তালিকা 2022

লাইট এক্স ফটো এডিটর এপ্স এর বৈশিষ্টঃ 

  • ফটোর ব্যাকগ্রাউন্ড পরিবর্তন করতে পারবেন সহজে।
  • বিভিন্ন কালার স্লাপ্স। 
  • ব্লার,  ফ্রেম,  স্টিকার ব্যবহার করতে পারবেন।
  • ভালো মানের ছবির আউটপুট। 
  • সেলফি এডিট করতে পারবেন।
  • ফিল্টার টুলস দিয়ে আরো আকর্ষণীয় করার উপায়।
আমাদের শেষ কথা 

ফটো এডিট করার ভালো এপ্স কোনটি?  অনেকেই এ সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে চান।  তবে ভালো আর্টিকেল পান না।  তবে আমরা চেষ্টা করেছি আজকের আর্টিকেলে আপনাদের এ সম্পর্কে বিস্তারিত ভাবে জানানোর।  আশা করি এই এপ্স গুলো দিয়ে আপনারা অনেক সুন্দর ভাবে ফটো এডিট করে নিতে পারবেন।  

যে কোনো ধরনের জিজ্ঞাসার জন্য। আমাদের সাথে যুক্ত হতে পারেন আমাদের ফেসবুক পেইজে

About admin

In a world where you can have everything. Be a giver first. My hobbies are writing , gaming, and SEO 😊

View all posts by admin →

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *