খাবারের দোয়া – খাওয়ার আগে ও পরে যে দোয়া পাঠ করতে হয় 2022

খাবারের দোয়া

খানা খাওয়ার শুরুতে এবং শেষে যে দোয়া পরতে হয়।

খাবারের দোয়া- সকল কাজ করার শুরুতে বিসমিল্লাহ বলা সুন্নাত। সকল কাজের শুরু আল্লাহর নামে শুরু করা একটি গুরুত্বপূর্ণ সুন্নাত। আমরা সকল কাজ করার শুরুতে আল্লাহর নামে শুরু করবো, তাহলে আল্লাহ আমাদের সকল কাজে বরকত দিবেন।

খাবারের দোয়া

আমরা যা কিছুই করি সব শেষ কিন্তু আমরা একটি কাজের জন্য সকল কাজ করে থাকি সেটা হলো, পরিবার পরিজন সহ দুই বেলা ভালো ভাবে দু মুঠো খাওয়ার জন্য। সকল কাজের শেষটা গিয়ে খাওয়ার জন্য করি। আল্লাহ আমাদের সকল কে আল্লাহর হুকুম আহকাম মেনে নবী করিম সঃ এর তরিকার উপর থেকে আয় রুজি উপার্জন করার তাওফিক দান করুন আমিন। খাবারের দোয়া দোয়া দেখে নিন।

আল্লাহর কাছে সাহায্য চাওয়ার দোয়া – 2022

আজকে আমরা আলোচনা করবো খাবারের দোয়া দোয়া সম্পর্কে। খাওয়ার শুরুতে এবং খাওয়ার শেষ যে দোয়া পরতে হয় সে সম্পর্কে এবং নবী করিম সঃ যে ভাবে খেতেন তার আদব সম্পর্কে আলোচনা করবো ইনশাআল্লাহ।

খানা খাওয়ার আগের দোয়া –

 (بسم الله وعلى بركةالله)

খাবারের দোয়া উচ্চারণ: বিসমিল্লাহি ওয়া আলা বারকাতিল্লাহ
খাবারের দোয়া অর্থ: আল্লাহ তায়ালার নামে খানা খাওয়া শুরু করছি এবং আল্লাহ তায়ালার বরকত প্রার্থনা করছি। (সাআলাবী)।

খাওয়ার শুরুতে যদি দোয়া পরতে ভুলে যায় তাহলে যে দোয়া পরতে হয়ঃ নবী করিম সঃ বলেন যদি কেহ খাওয়ার শুরুতে বিসমিল্লাহ বলতে ভুলে যায় তাহলে এই কথা মনে পরার সাথে সাথে এই দোয়া পরবে,

بسم الله اوله واخره

খাবারের দোয়া উচ্চারণ: বিসমিল্লাহি আওয়ালাহু ওয়া আখেরাহ

খাবারের দোয়া অর্থ: আমি আল্লাহ তায়ালার নামে খানা খাওয়া শুরু করছি। প্রথমেও আল্লাহ তায়ালার নাম, পরিশষেও আল্লাহ তায়ালার নাম। (আবু দাউদ, আহমদ, দারেমী)।

খাওয়ার শেষে যে দোয়া পরতে হয়

খাবারের দোয়া – খানা খাওয়ার পর নবী করিম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এই দোয়া পড়তে বলেছেন,

الحمد لله الذى اطعمنا وسقانا وكفانا واواناوارواناوجعلنا من المسلمين

খাবারের দোয়া উচ্চারণ: আলহামদুলিল্লাহি আতআমানা, ওয়াসাকানা, ওয়াকাফানা, ওয়াআয়ানা, ওয়া আরওয়ানা, ওয়াজা আলানা মিনাল মুসলিমীন।

খাবারের দোয়া অর্থ: সমস্ত প্রশংসা আল্লাহ তায়ালার যিনি আমাদেরকে খাইয়েছেন, পান করিয়েছেন, যথেষ্ট পরিমাণ খাবার দিয়েছেন, বাসস্থানের ব্যবস্থা করেছেন, সকল প্রকার নেয়ামত দিয়েছেন এবং আমাদের মুসলমানদের অন্তর্ভূক্ত করেছেন।

খানা খাওয়ার অনেক আদব রয়েছে, আল্লাহ পাক রব্বুল আলামীন এরশাদ করপলেন ও নবী করিম সঃ বলেন,

আল্লাহ পাক রব্বুল আলামীন বলেন তোমরা হারাম এবং ময়লা যুক্ত খাবার থেকে বিরত থাকো, আল্লাহ পাক রব্বুল আলামীন কুরআনে কারিমে বলেন,

(يَٰٓأَيُّهَا ٱلَّذِينَ ءَامَنُواْ كُلُواْ مِن طَيِّبَٰتِ مَا رَزَقۡنَٰكُمۡ)

খাবারের দোয়া অর্থ -“হে মুমিনগণ! তোমাদেরকে আমরা যেসব পবিত্র বস্তু দিয়েছি তা থেকে খাও।”[2] আর পবিত্র মানে হালাল বস্তু, যা ময়লাযুক্ত, দূষিত ও অপবিত্র নয়।

বৃষ্টির দোয়া – বর্জপাতের সময় কোন দোয়াটি পড়তে হয়? – 2022

নবী করিম সঃ বলেন, তোমরা খাবার খাওয়া শুরু করো তোমার খাওয়ার পাত্রের যে পাশ তোমার হাতের কাছে সে পাশ দিয়ে খাওয়া শুরু করো এবং খাওয়ার সময় কোন কথা না বলে খাওয়া শেষ করে কথা বলো, নবী করিম সঃ অন্য হাদিসে বলেন, হযরত আনাস রাদিআল্লাহু তাআ’লা আনহু হতে বর্নিত তিনি বলেন,

« مَا أَكَلَ رَسُولُ اللَّهِ صَلَّى اللَّهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ عَلَى خِوَانٍ ، وَلَا فِي سُكُرُّجَةٍ » . (رواه البخاري).

অর্থঃ “রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু ‘আলাইহি ওয়াসাল্লাম টেবিলের উপর খাননি। সমতল জমিনের উপর খানা খেতেন।

শেষ কথাঃ

খাবারের দোয়া – আল্লাহ পাক রব্বুল আলামীন যে আমাদের সকল মুসলমানদের হারাম থেকে বিরত রাখেন এবং হালাল উপার্জন করার তাওফিক দান করুন এবং নবী করিম সঃ এর সুন্নতের উপর আমোল করার তাওফিক দান করুন এবং তার দেখানো পথে তার আদব অনুযায়ী খাওয়ার তাওফিক দান করুন আল্লাহ আমাদের সকল সুন্নতের উপর অটল থাকার তাওফিক দান করুন আমিন।

না পড়ে পরীক্ষায় পাশ করার উপায় গুলো কী কী – কিভাবে সহজে এ+ পাওয়া যায়?

About admin

In a world where you can have everything. Be a giver first. My hobbies are writing , gaming, and SEO 😊

View all posts by admin →

Leave a Reply

Your email address will not be published.