আলু দিয়ে বিকালের নাস্তার কয়েকটি সহজ রেসিপি

আলু দিয়ে নাস্তা

আলু দিয়ে বিকেলের নাস্তা

আলু দিয়ে নাস্তা -আমরা অনেকেই বিকেলবেলা ভাজাপোড়া জিনিস খেতে পছন্দ করি। বাসার বয়স্ক ও ছোট সদস্যরা বিকেল হলেই আবদার করা শুরু করে দেয় ভাজাপোড়া খাওয়ার জন্য। আমাদের মা-বোনেরা টেনশনে পড়ে যায় তারা প্রতিদিন কি নাস্তা তৈরি করবে। গুগোল, ইউটিউব ফেসবুকের বিভিন্ন পেইজের তারা রেসিপি সার্চ করতে থাকে। আজকে আমরা আপনাদের জন্য বিকেলে আলু দিয়ে কিছু সহজ নাস্তার রেসিপি নিয়ে হাজির হয়েছি। অনেকের কাছেই অন্যরকম পছন্দের খাবারের তালিকায় রয়েছে আলু। আলু সহজলভ্য এবং রেসিপি বানাতে সময় খুব কম লাগে আপনারা চাইলেই খুব সহজে আলু দিয়ে বিভিন্ন রেসিপি বানিয়ে সবাইকে খাওয়াতে পারেন। চলুন শুরু করা যাক।

ফ্রেন্স ফ্রাই – আলু দিয়ে নাস্তা

ফ্রেন্স ফ্রাই বানানো যেমন খুব সহজ। তেমনি খেতেও ভালো। বাচ্চারাও খুব বেশি পছন্দ করে।
চলুন রেসিপিতে যাওয়া যাক।

উপকরণ-
♦আলু।

♦তেল।

♦লবন।

♦মরেচের গুড়া।

♦বিট লবন।

প্রস্তুত প্রনালী-
পরিবারের লোক সংখ্যা অনুযায়ী আলু নিতে হবে।
আলুগুলো কে ভালোভাবে ছিলা লম্বা লম্বা করে কেটে নিতে হবে।
এরপর আলুগুলো খুব সুন্দর করে দুয়ে নিতে হবে।
এবার একটা হাড়িতে পরিমান মতো পানি বসাতে হবে আলুগুলো৷ সেদ্ধ করার জন্য। পানি ফুটতে শুরু করলে আলুগুলো ৩/৪ মিনিট পানতে সেদ্ধ করতে হবে।

এর বেশি সময় সেদ্ধ করা যাবে না। তাহলে ফ্রেন্স ফ্রাই খেতে ভালো হবে না। আলু সেদ্ধ হয়ে গেলে একটি বাটিতে টিসু রেখে তার মধ্যে উঠিয়ে নিতে হবে। এতে আলুতে থাকা পানি শুকিয়ে যাবে। আলু দিয়ে নাস্তা
এবার ভাজার পালা। চুলায় তেল দিয়ে অপেক্ষা করতে হবে যতক্ষন না তেল ভালোভাবে গরম হয়। এরপর সেদ্ধ করা আলুগুলো ভেজে নিতে হবে। ভাজার সময় চুলার আচ কমিয়ে নিতে হবে যাতে পুড়ে না যায়।
ভাজা হয়ে গেলে এর মধ্যে শুকনা মরিচ ও বিট লবন দিয়ে ভালোভাবে মাখিয়ে নিতে হবে।
টমেটো সস দিয়ে খেতে কিন্তু দারুন স্বাদ লাগে।

আলুর চপ – আলু দিয়ে নাস্তা

উপকরন

আলু।
পিয়াজ।
কাঁচা মরিচ।
বেসন।
তেল।
হলুদ গুড়া।
মরিচ গুড়া

প্রস্তুত প্রনালী-

আলুর খোসা ছাড়িয়ে সেদ্ধ করে নিতে হবে। এরপরে পেয়াজ, কাঁচা মরিচ কুচি কুচি করে কেটে পরিমান মতো লবন দিয়ে আলুর ভর্তা বানিয়ে নিতে হবে। এবার ভর্তা গুলোকে গোল গোল করে সেইপ দিতে হবে।
এবার ২/৩ টেবিল চামচ বেসন নিয়ে তাতে আধা চা চামচ হলুদের গুড়া ও আধা চা চামচ মরিচের গুড়া ও পরিমান মতো লবন দিয়ে একটা ব্যাটার তৈরি করতে হবে। খেয়াল রাখতে হবে ব্যাটারটা যেনো খুব বেশি পাতলা না হয়ে যায়। এবার গোল করে রাখা আলুর বল গুলো বেসনের মধ্যে ডুবিয়ে ডুবো তেলে ভেজে নিলেই তৈরি হয়ে যাবে আলুর মজাদার চপ বা আলু দিয়ে নাস্তা।

আলু ডিমের চপ

উপকরনঃ
আলু।
পিয়াজ।
কাঁচা মরিচ।
বেসন।
তেল।
হলুদ গুড়া।
মরিচ গুড়া।
ডিম।

প্রস্তুত প্রনালীঃ

আলুর খোসা ছাড়িয়ে সেদ্ধ করে নিতে হবে। এরপরে পেয়াজ, কাঁচা মরিচ কুচি কুচি করে কেটে পরিমান মতো লবন দিয়ে আলুর ভর্তা বানিয়ে নিতে হবে। এবার ভর্তা গুলোকে গোল গোল বল করে সেইপ দিতে হবে।

এবার যে কয়টি বল হয়েছে সেই কয়টি দিম সেদ্ধ করে খোসা ছাড়িয়ে নিতে হবে।
এবার এক একটি ডিম নিয়ে সেগুলো আলুর বলের মধ্যে ঢুকিয়ে ভালো ভাবে চেপে দিতে হবে যাতে ডিম আলুর পুর থেকে বার হয়ে না যায়।
এজন্য অবশ্যই আলুর বল গুলো একটু বড় আকারের বালাতে হবে।

এখন ২/৩ টেবিল চামচ বেসন নিয়ে তাতে আধা চা চামচ হলুদের গুড়া ও আধা চা চামচ মরিচের গুড়া ও পরিমান মতো লবন দিয়ে একটা ব্যাটার তৈরি করতে হবে।

খেয়াল রাখতে হবে ব্যাটারটা যেনো খুব বেশি পাতলা না হয়ে যায়। এবার গোল করে রাখা বল গুলো বেসনের মধ্যে ডুবিয়ে ডুবো তেলে ভেজে নিলেই তৈরি হয়ে যাবে মজাদার আলু ডিমের চপ।

আলু পুরি – আলু দিয়ে নাস্তা

উপকরনঃ

আলু।
পিয়াজ।
কাঁচা মরিচ।
ময়দা।
তেল।
শুকনা মরিচের গুড়া।
লবন

প্রস্তুত প্রনালীঃ
আলুর খোসা ছাড়িয়ে সেদ্ধ করে নিতে হবে। এরপরে পেয়াজ, কাঁচা মরিচ কুচি কুচি করে কেটে পরিমান মতো লবন ও শুকনা মরিচের গুড়া দিয়ে আলুর ভর্তা বানিয়ে নিতে হবে। এবার ভর্তা গুলোকে ছোট ছোট গোল গোল করে সেইপ দিয়ে এক সাইডে রেখে দিতে হবে।

বিকালের নাস্তার সহজ রেসিপি

এবার একটা বাটিতে এক কাপ ময়দা নিতে হবে।
অল্প অল্প পানি দিয়ে ময়দাটাকে মাখাতে হবে। আমরা রুটি বানাতে যেমন নরম করি ময়দাটাকে ততোটুকুই নরম রাখতে হবে। রুটি বেলার প্যারার মতো কয়েকটি প্যারা বনিয়ে নিতে হবে। আলু দিয়ে নাস্তা  বানাতে

এবার পুরি বানানোর পালা। ময়দা দিয়ে বানিয়া রাখা প্যারা গুলো দিয়ে ছোটো আকারের একটা রুটির মতো বেলে নিতে হবে। এবার বানিয়ে রাখা আলুর পুর এর মধ্যে দিয়ে ভালোভাবে চারো দিক দিয়ে আটকে দিতে হবে। এবার আস্তে আস্তে সাবধানে বেলে নিতে হবে। খুবই সাবধানে কাজটি করতে হবে। খেয়াল রাখতে হবে কোনো ভাবেই যেনো আলুর পুর বের হয়ে না যায়। এখন চুলায় তেল গরম করতে দিতে হবে। তেল খুব ভালো করে গরম হলে পুরি গুলো ডুবো তেলে ভেজে নিতে হবে। দেখবেন কি সুন্দর ফুলে উঠে ভাজার সময়।
এবার ভাজা হয়ে গেলে চুলা থেকে নামিয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন মজাদার আলু পুরি।

আলুর পরোটা

উপকরনঃ
আলু।
পিয়াজ।
কাঁচা মরিচ।
ময়দা।
তেল।
শুকনা মরিচের গুড়া।
ডিম।
ঘি
লবন।

প্রস্তুত প্রনালীঃ

আলুর খোসা ছাড়িয়ে সেদ্ধ করে নিতে হবে। এরপরে পেয়াজ, কাঁচা মরিচ কুচি কুচি করে কেটে পরিমান মতো লবন ও শুকনা মরিচের গুড়া দিয়ে আলুর ভর্তা বানিয়ে নিতে হবে। এবার এর মধ্যে ২ চা চামচ তেল,এক কাপ ময়দা ও একটি ডিম দিয়ে সবগুলো উপকরণ ভালো ভাবে মাখাতে হবে।
রুটি পরাটা বেলার প্যারার মতো কয়েকটি প্যারা বনিয়ে নিতে হবে।

এবার বেলার পালা। প্যারা গুলো সুন্দর করে বেলে নিতে হবে। বেলা হয়ে গেলে একটা ফ্রাইংপ্যান চুলার ওপর গরম করতে দিতে হবে। ফ্রাইংপ্যান গরম হলে একটু ঘি দিয়ে পরাটা গুলো ভেজে নিতে হবে হালকা আচে।
তৈরি হয়ে যাবে মজাদার আলুর পরাটা বা আলু দিয়ে নাস্তা।

আলুর পকোড়া- আলু দিয়ে নাস্তা

উপকরণঃ

আলু।
পিয়াজ।
কাঁচা মরিচ।
মুসুরি ডাল
তেল।
ডিম।
মরিচের গুড়া।
হলুদের গুড়া।
লবন।

প্রস্তুত প্রনালীঃ
ডাল ভিজিয়ে ব্লেন্ড করে নিতে হবে। আলুর খোষা ছাড়িয়ে ভালো ভাবে ধুয়ে ব্লেন্ড করে নিতে হবে।
এবার বাকি সব উপকরণ ভালো ভাবে মিশিয়ে নিতে হবে। একপরে ডুবো তেলে ভেজে নিলেই তৈরি হয়ে যাবে কুরমুরে আলুর পকোড়া

আলু নুডুলস এর পকোড়া – আলু দিয়ে নাস্তা

উপকরনঃ
আলু।
পিয়াজ।
কাঁচা মরিচ।
ময়দা।
তেল।
শুকনা মরিচের গুড়া।
ডিম।

প্রস্তুত প্রনালীঃ

নুডুলস সেদ্ধ করে নিতে হবে। আলুর খোসা ছাড়িয়ে সেদ্ধ করে নিতে হবে। এরপরে পেয়াজ, কাঁচা মরিচ কুচি কুচি করে কেটে পরিমান মতো লবন ও শুকনা মরিচের গুড়া দিয়ে আলুর ভর্তা বানিয়ে নিতে হবে। এবার এর মধ্যে অল্প পরিমানে ময়দা দিয়ে মাখিয়ে নিতে হবে।
শেষে সেদ্ধ করা নুডুলস দিয়ে মাখিয়ে পছন্দের আকার দিয়ে ডুবো তেলে ভেজে নিলেই বিকেলের সহজ আলু দিয়ে নাস্তা তৈরি।

আলু ডিমের পরোটা – আলু দিয়ে নাস্তা

উপকরণঃ
আলু।
পিয়াজ।
কাঁচা মরিচ।
ময়দা।
তেল।
শুকনা মরিচের গুড়া।
ডিম।

চুলের যত্ন ও চুল পড়া রোধের কার্যকর উপায় 2022

প্রস্তুত প্রনালীঃ

আলুর খোসা ছাড়িয়ে সেদ্ধ করে নিতে হবে। এরপরে পেয়াজ, কাঁচা মরিচ কুচি কুচি করে কেটে পরিমান মতো লবন ও শুকনা মরিচের গুড়া দিয়ে আলুর ভর্তা বানিয়ে নিতে হবে। এবার এর মধ্যে অল্প পরিমানে ময়দা আর ডিম পাতলা দিয়ে মাখিয়ে হবে। ফ্রাইংপ্যানের মধ্যে অল্প তেল দিতে হবে। এবার একটা চামচ দিয়ে পাতলা মিশ্রণটি কয়াইয়ে দিয়ে গোল করে মেলে দিয়ে হালকা আচে ভেজে নিতে হবে। তৈরি হয়ে গেলো মজাদারা আলু ডিমের পরাটা বা আলু দিয়ে নাস্তা। 

About admin

In a world where you can have everything. Be a giver first. My hobbies are writing , gaming, and SEO 😊

View all posts by admin →

Leave a Reply

Your email address will not be published.